খবর সমূহভর্তি

আইডিয়ালে ভর্তি লটারিতে দুর্নীতি অভিযোগ, অভিযানে দুদক

২০১৯ শিক্ষাবর্ষের প্রথম শ্রেণিতে ভর্তি লটারি প্রক্রিয়ায় জালিয়াতি ও দুর্নীতির অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রাজধানীর মতিঝিলে আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে সোমবার দিনব্যাপী অভিযান চালিয়েছে দুদকের এনফোর্সমেন্ট ইউনিট।

দুদকের অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন-১০৬) উল্লিখিত অভিযোগ পেয়ে এনফোর্সমেন্ট ইউনিটের প্রধান সমন্বয়ক ও মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহম্মাদ মুনীর চৌধুরী এ অভিযান চালানোর নির্দেশ দেন। দুদকের সহকারী পরিচালক মো. মাসুদুর রহমান ও মোছা. সেলিনা আখতার মনি এবং উপ-সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ জিন্নাতুল ইসলামসহ দুদকের পুলিশ ইউনিটের সদস্যরা এ অভিযানে অংশগ্রহণ করেন।

জানা যায়, রাজধানীর আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে ২০১৯ শিক্ষাবর্ষে প্রথম শ্রেণিতে সর্বমোট ৮৪০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। মতিঝিল ও বনশ্রী শাখায় বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভার্সনে এবং মুগদা শাখায় শুধু বাংলা ভার্সনে বালক ও বালিকা পৃথক ক্যাটাগরিতে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি হবে। এর মধ্যে আজ ছয়টি ক্যাটাগরির লটারি অনুষ্ঠিত হয় এবং মঙ্গলবার অবশিষ্ট চারটি লটারি অনুষ্ঠিত হবে।

সোমবার সকাল ৯ টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত মতিঝিল শাখার লটারি পর্যবেক্ষণ করে দুদক টিম। এতে তারা দেখতে পান, লটারির ফলাফল পেন্সিলের পরিবর্তে বলপেন/অমোচনীয় কালি দিয়ে লেখা। অন্যদিকে বালক ক্যাটাগরিতে নির্বাচিত তালিকার পাশাপাশি কোনো অপেক্ষমাণ তালিকা প্রকাশ করা হয়নি।

ভবিষ্যতে এ ধরনের অনিয়ম বন্ধে রাজধানীর মতিঝিল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষকে নির্দেশ দেয় দুদক টিম। এ ছাড়া দুদক টিম এই স্কুলের পার্শ্ববর্তী এলাকায় গড়ে ওঠা অসংখ্য ভর্তি কোচিং সেন্টারের প্রতিনিধিদের সমাগম নিয়ন্ত্রণ করে। দুদক টিমের উপস্থিতিতে এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা সন্তোষ প্রকাশ করেন।

এ অভিযান পরিচালনা প্রসঙ্গে এনফোর্সমেন্ট অভিযানের সমন্বয়কারী দুদক মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, ভর্তি প্রক্রিয়া দুর্নীতির অভিশাপ থেকে মুক্ত রাখতে দুদক কঠোরভাবে নজরদারি করছে। কোনোভাবেই দুর্নীতির সুযোগ দেয়া হবে না।

Check This

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button