মিয়োসিস বিভাজনের সময় ক্রসিং ওভারের ফলে জিনগত পরিবর্তনের মডেল বিশ্লেষণ।

মিয়োসিস বিভাজনের সময় ক্রসিং ওভারের ফলে জিনগত পরিবর্তনের মডেল বিশ্লেষণ। আপনি যদি বিজ্ঞান বিভাগের একজন শিক্ষার্থী হয়ে থাকেন তাহলে এই মুহূর্তে অবশ্য তার সমাধান হচ্ছেন কেন না সপ্তাহে জীববিজ্ঞান বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট প্রদান করা হয়েছে যেখানে ছাত্র-ছাত্রীদের দ্বিতীয় অধ্যায়ঃ কোশ বিভাজন এর আলোকে ছাত্র-ছাত্রীদের প্রশ্ন করা হয়েছে আমরা এখন লিখিত প্রশ্নের সমাধান এখানে প্রধান করব।

মিয়োসিস বিভাজনের সময় ক্রসিং ওভারের ফলে জিনগত পরিবর্তনের মডেল বিশ্লেষণ।

(ক) ক্রসিং ওভার ব্যতীত মিয়োসিস হলে কী ঘটবে?

রাউন্ড-১ বাবা থেকে আসা বৈশিষ্ট্য সমূহ রক্তে চর্বি বেশি, কোকড়া চুল, নীলাভ চোখ, শান্ত।
মা থেকে আসা বৈশিষ্ট্য সমূহ রক্তে চর্বি কম, সোজা চুল, বাদামি চোখ, চঞ্চল
রাউন্ড-২ বাবা থেকে বৈশিষ্ট্য সমূহ চর্বি কম, কোকড়া চুল, বাদামী চোখ, শান্ত।
মা থেকে আসা বৈশিষ্ট্য সমূহ চর্বি কম, সোজা চুল নীলাভ চোখ, শান্ত।

(খ) ক্রসিং ওভার ব্যতীত মিয়োসিস হলে কী ঘটবে?

রাউন্ড-৩ বাবা থেকে আসা বৈশিষ্ট্য সমূহ চর্বি কম, কোকড়া চুল, নীলাভ চোখ, শান্ত।
মা থেকে আসা বৈশিষ্ট্য সমূহ চর্বি কম, সোজা চুল, বাদামি চোখ, চঞ্চল
রাউন্ড-৪ বাবা থেকে বৈশিষ্ট্য সমূহ চর্বি কম, কোকড়া চুল, বাদামী চোখ, চঞ্চল।
মা থেকে আসা বৈশিষ্ট্য সমূহ চর্বি কম, সোজা চুল, নীলাভ চোখ, শান্ত।

(গ) ক্রসিং ওভার হওয়া এবং না হওয়ার ফলে যে যে জিনগত বৈচিত্র্যের পার্থক্য দেখা যায়, তা নিম্নে উল্লেখ করা হলাে :

১. ক্রসিংওভার না হওয়ার ফলে মাতার থেকে আসা বৈশিষ্ট্যসমূহের মধ্যে চুলের প্রকৃতি ছিলাে সােজা, কিন্তু ক্রসিং ওভার হওয়ার ফলে মাতার থেকে আসা বৈশিষ্ট্যের প্রকৃতি পরিবর্তিত হয়ে হচ্ছে কোকড়া প্রকৃতি ।

২. ক্রসিংওভার না হওয়ার ফলে পিতার থেকে আসা বৈশিষ্ট্যসমূহের মধ্যে চোখের প্রকৃতি ছিলাে নীলাভ, কিন্তু ক্রসিং ওভার হওয়ার ফলে পিতার থেকে আসা বৈশিষ্ট্যের প্রকৃতি পরিবর্তিত হয়ে হচ্ছে বাদামী প্রকৃতি।

জিনগত বৈচিত্র্যের পার্থক্য সৃষ্টি হওয়ার ব্যাখ্যা : আমরা জানি, একজোড়া সমসংস্থ ক্রোমােসােমের দুটি ননসিস্টার ক্রোমাটিডের মধ্যে অংশের বিনিময়কে ক্রসিং ওভার বলে। ক্রসিং ওভারের ফলে যেহেতু দুটি ক্রোমাটিডের মধ্যে অংশের বিনিময় ঘটে, ফলে জিনগত পরিবর্তন সাধিত হয়। জিনগত পরিবর্তন সাধনের ফলে জীবে বৈশিষ্ট্যগত পরিবর্তন সাধিত হয়।

এতে ক্রোমােসােমে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যের নিয়ন্ত্রক জিনের অবস্থানের পরিবর্তন হয়। যেমনটা উপরের পরীক্ষায় পর্যবেক্ষন করা হয়েছে ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top